বাস টপোলজি কি? {What is Bus Topology?}

বাস টপোলজি হল একটি নির্দিষ্ট ধরণের নেটওয়ার্ক টপোলজি যেখানে নেটওয়ার্কের বিভিন্ন ডিভাইস একটি একক কেবল বা লাইনের সাথে সংযুক্ত থাকে। সাধারণভাবে একটি নেটওয়ার্কে বিভিন্ন ডিভাইস কীভাবে সেট আপ করা হয় তা বোঝায়। 

{tocify} $title={Table of Contents}

বাস টপোলজি কি? {What is Bus Topology?}

  1. বাস টপোলজি এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যে সমস্ত স্টেশন একটি একক তারের মাধ্যমে যুক্ত থাকে যা একটি ব্যাকবোন তার নামে পরিচিত।
  2. প্রতিটি নোড ব্যাকবোন তারের সাথে সংযুক্ত থাকে তার সাথে ড্রপ কেবল সরাসরি ব্যাকবোন তারের সাথে সংযুক্ত থাকে।
  3. যখন একটি নোড নেটওয়ার্কে একটি মেসেজ পাঠাতে চায় তখন এটি নেটওয়ার্কে একটি মেসেজ রাখে। নেটওয়ার্কে উপলব্ধ সমস্ত স্টেশন মেসেজটি পাবে কিনা, ঠিকানা দেওয়া হয়েছে কিনা তা যাচাই করে।
  4. বাস টপোলজি প্রধানত 802.3 (ইথারনেট) এবং 802.4 স্ট্যান্ডার্ড নেটওয়ার্কে ব্যবহৃত হয়।
  5. বাস টপোলজির কনফিগারেশন অন্যান্য টপোলজির তুলনায় খুব সহজ।
  6. ব্যাকবোন কেবলটিকে একটি "একক লেন" হিসাবে বিবেচনা করা হয় যার মাধ্যমে সমস্ত স্টেশনে বার্তা সম্প্রচার করা হয়।
  7. বাস টপোলজির সবচেয়ে সাধারণ এবং সহজ অ্যাক্সেস পদ্ধতি হল CSMA (ক্যারিয়ার সেন্স মাল্টিপল অ্যাক্সেস)।

CSMA: এটি একটি মিডিয়া অ্যাক্সেস নিয়ন্ত্রণ যা ডেটা প্রবাহ নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যবহৃত হয় যাতে ডেটা অখণ্ডতা বজায় থাকে, অর্থাৎ, প্যাকেটগুলি হারিয়ে না যায়। দুটি নোড একই সাথে মেসেজ পাঠালে যে সমস্যাগুলি ঘটে তা পরিচালনা করার দুটি বিকল্প উপায় রয়েছে।

বাস টপোলজির সুবিধা

লো-কস্ট ক্যাবলঃ বাস টপোলজিতে, নোডগুলি হাবের মধ্য দিয়ে না গিয়ে সরাসরি তারের সাথে সংযুক্ত থাকে। তার জন্য ইনস্টলেশনের  খরচ কমে য়ায়।

ডাটা স্পিডঃ কোঅক্সিয়াল বা টুইস্টেড পেয়ার ক্যাবলগুলি মূলত বাস-ভিত্তিক নেটওয়ার্কগুলিতে ব্যবহৃত হয় যা 10 Mbps পর্যন্ত সমর্থন করে।

ফ্যামিলিয়ার টেকনোলজিঃ বাস টপোলজি একটি ফ্যামিলিয়ার টেকনোলজি কারণ ইনস্টলেশন এবং সমস্যা সমাধানের কৌশলগুলি সুপরিচিত এবং হার্ডওয়্যার উপাদানগুলি সহজেই উপলব্ধ।

লিমিটেড ফেলিয়ারঃ য়ে কোন একটি নোডের ব্যর্থতা অন্য কোন নোডগুলিতে কোন প্রভাব ফেলবে না।

বাস টপোলজির অসুবিধা

এক্সটেন্সিভ ক্যাবলিংঃ একটি বাস টপোলজি খুব সহজ, কিন্তু তবুও এটির জন্য প্রচুর তারের প্রয়োজন হয়।

ডিফিকাল্ট ট্রাবলশ্যুটিংঃ তারের ত্রুটি নির্ণয় করার জন্য এটি বিশেষ পরীক্ষার সরঞ্জাম প্রয়োজন। যদি তারের কোনো ত্রুটি ঘটে, তাহলে এটি সমস্ত নোডের জন্য যোগাযোগ ব্যাবস্থা বন্ধ করবে।

সিগন্যাল ইন্টারফেরেন্সঃ যদি দুটি নোড একই সাথে ম্যাসেজ পাঠায়, তবে উভয় নোডের সিগন্যাল একে অপরের সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

রেকনফিগারেশন ডিফিকাল্টঃ নেটওয়ার্কে নতুন ডিভাইস যুক্ত করলে নেটওয়ার্ক স্লো বা ধীর হয়ে যাবে।

আটটেনুয়েশনঃ সিগন্যাল হারানোর ফলে যোগাযোগের সমস্যা হয়। সিগন্যাল পুনরুত্পাদন করতে পুনরাবৃত্তিকারী ব্যবহার করা হয়।

নবীনতর পূর্বতন