লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেমের ইতিহাস

আগের দিনগুলিতে কম্পিউটারগুলি বাড়ি বা পার্কের মতোই বড় ছিল।সুতরাং আপনি কল্পনা করতে পারেন যে তাদের পরিচালনা করা কতটা কঠিন কাজ ছিল।কিন্তু প্রতিটি কম্পিউটারের একটি আলাদা অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে যা তাদের পরিচালনা করা সম্পূর্ণরূপে খারাপ করে তুলেছে।প্রতিটি সফ্টওয়্যার একটি নির্দিষ্ট উদ্দেশ্যে ডিজাইন করা হয়েছিল এবং অন্য কম্পিউটারে কাজ করতে অক্ষম ছিল।এটি অত্যন্ত কস্টলি এবং সাধারণ মানুষ এটি বহন করতে পারে না এবং বুঝতেও পারে না।

 লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেমের ইতিহাস


1969 সালে বেল ল্যাবসের ডেভেলপারদের একটি দল সমস্ত কম্পিউটারের জন্য একটি সাধারণ সফ্টওয়্যার তৈরি করার জন্য একটি প্রোজেক্ট শুরু করে এবং এটির নাম দেয় 'ইউনিক্স'।এটি সহজ এবং সুন্দর ছিল অ্যাসেম্বলি ল্যাঙ্গুয়েজে পরিবর্তে এটি তে সি প্রোগ্রামিং ভাষা ব্যবহার করা হয়েছিল এবং এর কোড পুনর্ব্যবহারযোগ্য ছিল।যেহেতু এটি পুনর্ব্যবহারযোগ্য ছিল এটির কোডের একটি অংশ যাকে এখন সাধারণত 'কার্নেল' বলা হয় অপারেটিং সিস্টেম এবং অন্যান্য ফাংশন বিকাশের জন্য ব্যবহৃত হয়েছিল এবং বিভিন্ন সিস্টেমে ব্যবহার করা যেতে পারে। এছাড়াও এর সোর্স কোড ছিল ওপেন সোর্স।প্রাথমিকভাবে ইউনিক্স শুধুমাত্র সরকার বিশ্ববিদ্যালয় বা মেইনফ্রেম এবং মিনিকম্পিউটার সহ বৃহত্তর আর্থিক কর্পোরেশনের মতো বড় প্রতিষ্ঠানে পাওয়া যেত।


আশির দশকে আইবিএম এইচপি এবং ডজন সংস্থার মতো অনেক সংস্থা তাদের নিজস্ব ইউনিক্স তৈরি করতে শুরু করে। এর ফলে ইউনিক্সের উপভাষাগুলির বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়।তারপর 1983 সালে রিচার্ড স্টলম্যান অপারেটিং সিস্টেমের মতো ইউনিক্সকে উপলব্ধ করার এবং সকলের দ্বারা ব্যবহার করার লক্ষ্যে GNU প্রোজেক্ট তৈরি করেন। কিন্তু তার প্রোজেক্ট জনপ্রিয়তা অর্জনে ব্যর্থ হয়।অপারেটিং সিস্টেমের মতো আরও অনেক ইউনিক্স মার্কেটে এসেছিল কিন্তু সেগুলোর কোনোটিই জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারেনি।


1991 সালে ফিনল্যান্ডের হেলসিঙ্কি বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্র লিনাস টোরভাল্ডস ফিনল্যান্ড ইউনিক্সের একটি ফ্রীলি উপলব্ধ একাডেমিক ভার্সন রয়েছে বলে মনে করা হয় এবং তার থেকে তিনি তার নিজস্ব কোড লেখা শুরু করে।পরবর্তীতে এই প্রোজেক্ট লিনাক্স কার্নেল হয়ে ওঠে।তিনি এই প্রোগ্রামটি বিশেষ করে তার নিজের পিসির জন্য লিখেছিলেন কারণ তিনি ইউনিক্স 386 ইন্টেল কম্পিউটার ব্যবহার করতে চেয়েছিলেন কিন্তু এটি সামর্থ্য ছিল না।তিনি GNU C কম্পাইলার ব্যবহার করে MINIX এ এটি করেছিলেন। লিনাক্স কোড কম্পাইল করার জন্য GNU C কম্পাইলার এখনও সবার পছন্দের কিন্তু অন্যান্য কম্পাইলারগুলিও Intel C কম্পাইলারের মতো ব্যবহার করা হয়।তিনি এটি শুধুমাত্র মজা করার জন্য শুরু করেছিলেন কিন্তু এত বড় একটি প্রজেক্ট হয়ে যাবে তিনি ভাবতে পারেনি। প্রথমে তিনি এটির নাম ফ্রেক্স নাম রাখতে চাইলেও পরে এটি লিনাক্স নাম হয়ে যায়।


তিনি তার নিজস্ব লাইসেন্সের মধ্যে দিয়ে লিনাক্স কার্নেল প্রকাশ করেন এবং এটি বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করতে সীমাবদ্ধ ছিলো।লিনাক্স তার বেশিরভাগ টুলস GNU সফ্টওয়্যার থেকে ব্যবহার করে।1992 সালে তিনি GNU জেনারেল পাবলিক লাইসেন্সের মধ্যে কার্নেলটি প্রকাশ করেন।


আজকের দিনে দেখতে গেলে লিনাক্স সুপার কম্পিউটার, স্মার্টফোন, ডেস্কটপ, ওয়েব সার্ভার, ট্যাবলেট, ল্যাপটপ এবং ওয়াশিং মেশিন, ডিভিডি প্লেয়ার, রাউটার, মডেম, গাড়ি, রেফ্রিজারেটর ইত্যাদি মেশিন গুলোতে লিনাক্স ওএস ব্যবহার করতে দেখতে পাই।

নবীনতর পূর্বতন